খাদ্যে ভেজালঃ সর্বোচ্চ শাস্তি করা হবে মৃত্যুদন্ডঃখাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার

0

শাহাদাত হোসেন রিটনঃ

খাদ্যে ভেজাল নতুন কিছু নয়। সুদীর্ঘ সময় ধরে ভুক্তভোগী সাধারন মানুষ। নানা সময়ে নানা পদক্ষেপ নেয়া হলেও কার্যকর কিছুৃই হয়নি এখনও। সম্প্রতি, খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে প্রয়োজনে নিরাপদ খাদ্য আইন সংশোধন করে শাস্তির মাত্রা বাড়িয়ে যাবজ্জীবন বা মৃত্যুদন্ডের বিধান করা হবে। খাদ্যে ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকার ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করেছে। শুধু রমজান মাসেই নয়, আমরা চাই ১২ মাসই জনগণ নিরাপদ খাদ্য খাবে।
গতকাল রোববার সচিবালয়ের সামনে রমজান উপলক্ষে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতকরণে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সুসজ্জিত মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে ঢাকা মহানগরীতে প্রচার-প্রচারণার উদ্বোধন শেষে তিনি একথা বলেন।


খাদ্যমন্ত্রী বলেন, খাদ্যে ভেজাল যারা মেশায় তাদের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। শুধু রমজান মাসেই নয়, আমরা চাই ১২ মাসই জনগণ নিরাপদ খাদ্য খাবে। যারা খাবারে ভেজাল দেয় তারা সমাজের শক্র, মানবতার শক্র। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, রমজান মাসে ভেজালবিরোধী অভিযানে নিয়মিতভাবে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে। প্রয়োজনে মোবাইল কোর্টের সংখ্যা বাড়ানো হবে।
মন্ত্রী বলেন, খাদ্যে ভেজালের বিষয়ে আমাদের নিজেদের মধ্যে আরও সচেতনতা বাড়ানো জরুরি। খাদ্যে ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে সবাই মিলে একযোগে, এক হয়ে কাজ করে এটিকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে। আতঙ্কিত না হয়ে ভেজাল প্রতিরোধে নিজেরা যদি আরও সোচ্চার হই তাহলে ভেজালমুক্ত নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা সম্ভব। মন্ত্রী ভেজালমুক্ত খাবার নিশ্চিতকরণে জনসচেতনতা বাড়িয়ে গণআন্দোলন গড়ে তুলতে সবার প্রতি আহ্বান জানান।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মাহফুযুল হক, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব একে আজাদ প্রমুখ।

আইন সংশোধন করে শাস্তির বাড়ানোর বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, প্রচলিত আইনে শাস্তির যে বিধান রয়েছে দরকার হলে আইন সংশোধন করে শাস্তির মাত্রা বাড়িয়ে শাস্তির মাত্রা বাড়িয়ে যাবজ্জীবন বা মৃত্যুদন্ড করা হবে।

ক্রাইম ডায়রি////অপরাধ//আইনশৃংখলা

 

8total visits,1visits today

About Author

Leave A Reply