সুনামগঞ্জ সদরে ফেরদৌসী সিদ্দিকাকে চায় জনসাধারণ

0

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সমসাময়িক তৈলাক্ত রাজনীতিতে হাইব্রিড, সুবিধাভোগী, স্বার্থান্বেষীদের ভিড়ের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আপাদমস্তক একজন মুজিব সৈনিক ফেরদৌসী সিদ্দিকা। যার পিতা সুনামগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রতিষ্ঠাতা কমান্ডার, ৫ নং সেক্টরের জুনিয়র সব সেক্টর কমান্ডার, বীর মুক্তিযোদ্ধা, অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাসী মরহুম শামসুল হক ছিলেন কৃষক, শ্রমিক, সাধারণ মানুষের বলিষ্ঠ কন্ঠস্বর। পরিবারের বড় মেয়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি বাবার হাত ধরে পদার্পন করেন রাজনীতিতে। দীর্ঘ বারো বছর ছিলেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক। বর্তমান জেলা আওয়ামীলিগের কার্যকরী সদস্য।

জনগণের সেবার ব্রত মন নিয়ে ২০০৯ সালে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হন। আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তায় লক্ষাধিক ভোটে নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে স্থানীয় সরকার নির্বাচন দলীয় ভাবে হওয়াতে সুনামগঞ্জের সিন্ডিকেট রাজনীতির কারণে দলীয় সর্মথন না পাওয়ায় দলীয় সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে নির্বাচন থেকে বিরত থাকলেও পুরোদমে সক্রিয় থাকেন মাঠের রাজনীতিতে।

আগামী ১০ ই মার্চ উপজেলা নির্বাচন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দলগত ভাবে চেয়ারম্যান প্রার্থী ঘোষণা করলেও উম্মুক্ত রাখা হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীদের জন্য। যেহেতু ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দলীয় নয়, সেহেতু ব্যাক্তিগত যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা, জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে নির্বাচন করে আসা লাগবে। ফেরদৌসী সিদ্দিকার সেই যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা,জনপ্রিয়তা আছে বলে বিশ্বাস করে এলাকার জনসাধারন। তারা আশা করে, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জনগণ যোগ্যতা ও বিগত দিনের অভিজ্ঞতাকে বিচার বিশ্লেষণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমৃদ্ধি রাখতে এই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ফেরদৌসী সিদ্দিকাকে পদ্ম ফুল মার্কায় ভোট দিয়ে পুনরায় নির্বাচিত করবেন।

ক্রাইম ডায়রি// রাজনীতি

212total visits,2visits today

About Author

Leave A Reply